সবুজ উপকূল ২০১৬, বড় মহেশখালীতে পড়ুয়াদের উৎসাহিত করলেন প্রধান শিক্ষক

প্রধান শিক্ষকের হাতে বেলাভূমি তুলে দিচ্ছে পড়ুয়ারা

মহেশখালী, কক্সবাজার, ২ অক্টোবর ২০১৬ : নিজ বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের বেলাভূমি’র যাত্রায় যুক্ত হওয়াকে ইতিবাচক হিসাবেই দেখছেন কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ হুমায়ূন কবির। এই বিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত বেলাভূমি’র প্রথম সংখ্যায় দেয়া বাণীতে তিনি বলেন, এই দেয়াল পত্রিকায় লিখে পড়ুয়ারা মনের ভাব প্রকাশ করতে পারবে। এর মাধ্যমে তাদের মেধার বিকাশ ঘটবে। এভাবে তারা সচেতন হবে এবং এগিয়ে যাবে সামনের দিকে।

পহেলা অক্টোবর ২০১৬ শনিবার পড়ুয়াদের অংশগ্রহনে এ বিদ্যালয়ে ব্যতিক্রমীধারার এই দেয়াল পত্রিকার আত্মপ্রকাশ ঘটে।

উপকূল জুড়ে ব্যতিক্রমীধারার দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র উদ্যোক্তা উপকূল বিষয়ক সৃজনশীল প্রতিষ্ঠান ‘উপকূল বাংলাদেশ’। উপকূলের পড়ুয়াদের পরিবেশ সচেতনতা বাড়ানো, সৃজনশীল মেধার বিকাশ, লেখালেখি চর্চার মাধ্যমে তথ্যে প্রবেশাধিকারসহ জীবন দক্ষতা বাড়ানো এই কর্মসূচির অন্যতম লক্ষ্য।

বেলাভূমি প্রথম সংখ্যায় দেয়া বাণীতে প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ হুমায়ূন কবির বলেন, সমুদ্র সৈকত পরিবেষ্টিত পর্যটন নগরী কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার মনোরম পরিবেশে অবস্থিত ঐহিত্যবাহী বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি প্রকাশনায় আমি আনন্দিত। একইসঙ্গে গর্বরোধ করছি এজন্য যে, উপকূলের শিক্ষার্থীরা অধিকাংশই সুবিধাবঞ্চিত। চরম সংকটে বড়দের ছোটরাও ঝুঁকিতে থাকে। গ্রামের শিক্ষার্থীরা যথাযথ শিক্ষার পরিবেশ পায়না বিধায় উপকূলের এই সব বাস্তবতা এই অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের ক্রমাগত পিছিয়ে রাখে।

প্রধান শিক্ষকের বাণীতে আরও উল্লেখ করা হয়, সংকটে থাকা শিক্ষার্থীরা সঠিকভাবে মানসিকভাবে বেড়ে উঠতে তাদের কাছে অনেক সুবিধা প্রয়োজন। লেখালেখি কিংবা ওই ধরণের সচেতনতা কর্মসূচিতে যুক্ত হয়ে উপকূলের পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীরা এগিয়ে যেতে পারে অনেক দূর। লেখালেখির চর্চা অব্যাহত রাখতে উপকূলের প্রান্তিক স্কুলগুলোতে দেয়াল পত্রিকা প্রকাশের মাধ্যমে চাই সুস্থ-সবল সবুজ উপকূল। যেখানে দুরযোগের বিধ্বংসী রূপ আর দেখা যাবে না। যেখানকার মানুষ নিরাপদে থাকবে সারাজীবন। যেখানে প্রকৃতি তার অবারিত সম্ভাবনার হাত বাড়িয়ে যাবে অবিরাম। স্বাস্থ্য-শিক্ষা থেকে শুরু করে কোন মৌলিক অধিকার বঞ্চিত যেন না হয়। নিবিড় শান্তির সুশীতল ছায়াতলে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে প্রকাশিত দেয়াল পত্রিকার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

//প্রতিবেদন/উপকূল বাংলাদেশ/০২১০২০১৬//

রফিকুল ইসলাম মন্টু

রফিকুল ইসলাম মন্টু

উপকূল অনুসন্ধানী সাংবাদিক। বাংলাদেশের সমগ্র উপকূলের ৭১০ কিলোমিটার জুড়ে তার পদচারণা। উপকূলীয় ১৬ জেলার প্রান্তিক জনপদ ঘুরে প্রতিবেদন লিখেন। পেশাগত কাজে স্বীকৃতি হিসাবে পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অনেকগুলো পুরস্কার।
পাঠকের মন্তব্য