উপকূলের তরুণদের প্রকাশের আলোয় আনছে ‘সবুজ উপকূল’

লেখক : অসীম আচার্য্য

পৃথিবীতে মানব সভ্যতার বিকাশলগ্নে মানব মনের গহীন অঞ্চলে অব্যক্ত কথামালা বিচরণ করে আসছিল। এই অব্যক্ত কথামালাকে প্রকাশ করার প্রয়াসে আদি মানবগণ বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেছেন। বৃক্ষপত্রে, পাহাড়ের গায়ে, পাথর খোদাই করে কিংবা শুকনো কাঠের উপর তাদের মনের অভিব্যক্তির প্রস্ফুটন ঘটিয়েছেন তারা। এরই ধারাবাহিকতায় যুগ বদলের সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তন হয়েছে মাধ্যমের। দেয়াল পত্রিকা এমনই একটি মাধ্যম।

২০১৫ সাথ থেকে শুরু হওয়া ‘সবুজ উপকূল কর্মসূচি’ এই দেয়াল পত্রিকার কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করেছে। আর কার্যক্রমের মধ্যদিয়ে উপকূলের তরুণরা আসছে প্রকাশের আলোয়। তাদের চিন্তা-ভাবনায় আসছে পরিবর্তন। আমি সবুজ উপকূল কর্মসূচির পৃষ্ঠপোষক ফাস্র্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জানাই অভিনন্দন।

শিক্ষার্থীদের মনের অবিচল অব্যক্ত ইচ্ছাগুলোর কথামালা বহিঃপ্রকাশের মাধ্যম দেয়াল পত্রিকা। ভোলা জেলা সদরে মেঘনা পাড়ের টবগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি প্রকাশ শিক্ষার্থীদের প্রতিভা বিকাশে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ২০১৫ সালে উপকূল অঞ্চল ঘুরে কর্মরত সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম মন্টুর হাত ধরে সর্বপ্রথম দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র সাথে নিজেদের সম্পৃক্ত করে। এরপর থেকেই শিক্ষার্থীদের ঘুমিয়ে থাকা লেখনি প্রতিভা জাগ্রত হয়। শিক্ষার্থীরা দৃষ্টিপাত ও আমার স্বপ্নের স্কুল বিষয়ে দু’টি সংখ্যা প্রকাশ করে গোটা বিদ্যালয়ে বেশ সাড়া জাগায়। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিজেদের লেখা বেলাভূমিতে দেখতে পেয়ে আরও উদ্দীপ্ত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় পরের সংখ্যাটি প্রকাশে উদ্যোগ গ্রহন করে।

বেলাভূমি শুধু দেয়াল পত্রিকার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকছে না। এর অনলাইন সংস্করণে শিক্ষার্থীদের লেখা ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্ব জুড়ে। এই বিদ্যালয়ে প্রকাশিত বেলাভূমি’র সংখ্যাগুলো শিক্ষার্থীরা ইউকে পার্টনার স্কুল কুইন এলিজাবেথ গ্রামার স্কুল-এর সাথে শেয়ার করছে। এক কথায় টবগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সুদুরপ্রসারি ভাবনার আবাস স্থল হচ্ছে এখন বেলাভূমি।

উপকূলের প্রান্তিক এই বিদ্যালয়টি ২০০৯-২০১২ সাল পর্যন্ত সকল সহপাঠক্রমিক শিক্ষার কর্মকান্ডের স্বীকৃতি স্বরূপ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার পর থেকে সকল শিক্ষার্থীরা সহপাঠক্রমিক শিক্ষার সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত। বিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট কাউন্সিলের ৫০ জন শিক্ষার্থী সকল প্রকার সহপাঠক্রমিক শিক্ষা কর্মকান্ড নেতৃত্ব দিচ্ছে। এইসব কাজের সঙ্গে ২০১৫ সাল থেকে যুক্ত হল দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ। শিক্ষার্থীরা প্রতিদিনই নতুন বিষয়ের ওপর লেখা জমা দিচ্ছে। লেখালেখিতে তাদের আগ্রহ অনেক বেড়েছে। এর মধ্যদিয়ে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতা বিকশিত হচ্ছে। একইসঙ্গে ভাষার ব্যবহার ও জ্ঞানের পরিধি বাড়ছে।

অসীম আচার্য্য, সহকারি প্রধান শিক্ষক, টবগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ভোলা সদর, ভোলা

রফিকুল ইসলাম মন্টু

রফিকুল ইসলাম মন্টু

উপকূল অনুসন্ধানী সাংবাদিক। বাংলাদেশের সমগ্র উপকূলের ৭১০ কিলোমিটার জুড়ে তার পদচারণা। উপকূলীয় ১৬ জেলার প্রান্তিক জনপদ ঘুরে প্রতিবেদন লিখেন। পেশাগত কাজে স্বীকৃতি হিসাবে পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অনেকগুলো পুরস্কার।