সবুজ উপকূল ২০১৬, অনুষ্ঠান উপস্থাপন করতে পেরে আনন্দিত নুসরাত

অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছে নুসরাত তাসনীম

বাঁশখালী, চট্টগ্রাম, ২১ অক্টোবর ২০১৬ : চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে সবুজ উপকূল ২০১৬ কর্মসূচিতে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করলো দুই ক্ষুদে পড়ুয়া। এদের মধ্যে একজন সপ্তম শ্রেণীর নুসরাত তাসনীম। বিশিষ্ট অতিথিগণের সামনে এমন একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপন করতে পেরে আনন্দিত নুসরাত।

উপকূলের পড়ুয়াদের সবুজ সুরক্ষার আহবানের মধ্যদিয়ে চট্টগ্রামের উপকূলীয় উপজেলা বাঁশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হল ‘ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক সবুজ উপকূল ২০১৬’ কর্মসূচি। বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) বিদ্যালয় অঙ্গণে উৎসবমূখর পরিবেশে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

জীবনে প্রথম অনুষ্ঠান উপস্থাপনার অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে নুসরাত বলেছে, আমি এবং আমার একজন সহপাঠী দু’জন মিলে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছি। এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে প্রকাশিত দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র সম্পাদকও ছিলাম আমি। উপস্থাপনা করতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। এটাই আমার জীবনে প্রথম উপস্থাপনার অভিজ্ঞতা। প্রথম প্রথম আমার খুবই ভয় করতে লাগলো। পরে হঠাৎ ভয়টা চলে গিয়ে আমার বেশ আনন্দ হলো। এই অভিজ্ঞতা আমার পরবর্তী জীবনে কাজে লাগবে। আমার কাছ থেকে হয়তো অনেকে শিখতে পারবে, কীভাবে উপস্থাপনা করতে হয়। তাছাড়া আমিও আগামীতে আর কোন অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ভয় পাবো না। প্রথমবার হয়তো কিছুটা ত্রুটি হয়ে থাকতে পারে। পরের বার আরও ভালো করবো বলে আশা রাখি। প্রথম অনুষ্ঠান উপস্থাপনা থেকে শিখেছি, কীভাবে অনুষ্ঠান চলাকালীন বিভিন্ন অবস্থাকে মানিয়ে নিতে হয়। উপস্থিত মতো কীভাবে অনুষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ রাখতে হয়। তাছাড়া অনুষ্ঠান উপস্থাপনার এই অভিজ্ঞতা আমার জীবন চলার পথ অনেকটা সহজ করে দিবে বলে মনে করি।

সবুজ উপকূল কর্মসূচির আওতায় ছিল রচনা লিখন, কবিতা/ছড়া লিখন, পত্র লিখন, ছবি আঁকা ও সংবাদ লিখন প্রতিযোগিতা। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও ‘নতুন প্রজন্মের জন্য চাই সবুজ উপকূল’ বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়, মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয় এবং গাছের চারা রোপণ করা হয়। কর্মসূচি উপলক্ষে বিদ্যালয়ে প্রকাশিত হয় দেয়াল পত্রিকা ‘বেলাভূমি’র প্রথম সংখ্যা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাঁশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সবুজ উপকূল ২০১৬ স্থানীয় বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক মনোতোষ দাশ।

বক্তব্য দেন বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ইশতিয়াক আহমেদ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. লুৎফর রহমান, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক বাঁশখালী শাখা ব্যবস্থাপক মো. আনোয়ারুল আলম, আলাওল ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক আজিজুর রহমান প্রমূখ। আরও উপস্থিত ছিলেন বাঁশখালী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাকেরা শরীফ ও ওয়েসিস-বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক আছমা আক্তার মুন্নী।

অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য দেন সবুজ উপকূল ২০১৬ স্থানীয় বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও দৈনিক আজাদীর বাঁশখালী প্রতিনিধি কল্যাণ বড়ুয়া মুক্তা। কর্মসূচির পেক্ষাপট তুলে ধরেন উপকূল সাংবাদিক ও সবুজ উপকূল কর্মসূচির কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী রফিকুল ইসলাম মন্টু। অনুষ্ঠানের শুরুতে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে উপকূলের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরে বক্তব্য দেয় বাঁশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী সামিয়া মোস্তফা রিফা।

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় এই কর্মসূচির আয়োজন উপকূল বিষয়ক ওয়েব জার্নাল ‘উপকূল বাংলাদেশ’। উপকূলের পড়ুয়াদের মাঝে পরিবেশ সচেতনতা বাড়ানো, সৃজনশীল মেধার বিকাশ, লেখালেখি চর্চার মাধ্যমে তথ্যে প্রবেশাধিকারসহ জীবন দক্ষতা বাড়ানো এই কর্মসূচির অন্যতম লক্ষ্য।

//প্রতিবেদন/উপকূল বাংলাদেশ/২১১০২০১৬//

রফিকুল ইসলাম মন্টু

রফিকুল ইসলাম মন্টু

উপকূল অনুসন্ধানী সাংবাদিক। বাংলাদেশের সমগ্র উপকূলের ৭১০ কিলোমিটার জুড়ে তার পদচারণা। উপকূলীয় ১৬ জেলার প্রান্তিক জনপদ ঘুরে প্রতিবেদন লিখেন। পেশাগত কাজে স্বীকৃতি হিসাবে পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অনেকগুলো পুরস্কার।
পাঠকের মন্তব্য