শরণখোলায় ব্যাংক কর্মকর্তার বাসা থেকে এনজিও কর্মীর লাশ উদ্ধার

প্রতীকী চিত্রশরণখোলা (বাগেরহাট) : বাগেরহাটের শরণখোলায় বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) সকালে ব্যাংক কর্মকর্তার বাসা থেকে এক এনজিও কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজৈর এলাকার বাসিন্দা জেরিন ভিলার মালিক ও জনতা ব্যাংক শরণখোলা শাখার কর্মকর্তা মোঃ এমাদুল হকের বিল্ডিংয়ের নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়।

৩ বছর পুর্বে সোস্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) নামের একটি উন্নয়ন সংস্থা এনজিও ওই বাড়ির নিচ তলার ফ্লাটটি ভাড়া নেয়। সেখানে গত ১লা জুন ২০১৪ সালে বরগুনা জেলার পুর্ব কেওড়াবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা মৃত আঃ মজিদ হাওলাদারের পুত্র আসাদুজ্জামান রিপন (৪৮) নতুন জীবন প্রকল্পের আওতায় ক্লাষ্টার ফেসিলেটেটর পদে যোগদান করে।

প্রতিদিনের ন্যায় গত ৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার রাতে স্থানীয় একটি বাড়িতে দাওয়াত খেয়ে রিপন তার কক্ষে ঘুমাতে যায় এবং সকালে ঘুম থেকে না ওঠায় ডাকাডাকির এক পর্যায়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ওই এনজিও কর্মীর লাশ উদ্ধার করে।

এসডিএফ এর স্থানীয় শাখার ম্যনেজার মোঃ মোস্তফা বলেন, অফিসের মালামাল দেখা শুনার জন্য রিপন রাতে অফিসে থাকতেন।

এ বিষয় শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রেজাউল করিম বলেন, নিহত রিপনের পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়া হয়েছে। তবে ময়না তদন্ত ছাড়া নিহতের বিষয় নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছেনা।

//শেখ মোহাম্মদ আলী/উপকূল বাংলাদেশ/শরণখোলা-বাগেরহাট/০১১০২০১৫//

রফিকুল ইসলাম মন্টু

রফিকুল ইসলাম মন্টু

উপকূল অনুসন্ধানী সাংবাদিক। বাংলাদেশের সমগ্র উপকূলের ৭১০ কিলোমিটার জুড়ে তার পদচারণা। উপকূলীয় ১৬ জেলার প্রান্তিক জনপদ ঘুরে প্রতিবেদন লিখেন। পেশাগত কাজে স্বীকৃতি হিসাবে পেয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অনেকগুলো পুরস্কার।
পাঠকের মন্তব্য