পানিবন্দি জীবন

ক্যাপসন ছবিভোলার দৌলতখানে পানিবন্দি পরিবারগুলো ঘরে মাঁচার উপর গবাদি পশুর সাথে বসবাস করছে। রিং বাঁধ দিয়ে তীব্র বেগে জোয়ারে পানি প্রবেশ করায় অনেকের কাঁচাঘর ধসে পড়েছে। গৃহহীন হয়ে অনেকে উঁচু রাস্তার ওপর খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। কোনো কোনো পরিবার আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। শুধুমাত্র শুকনো খাবার খেয়ে অতি কষ্টে চলছে তাদের জীবন। এখন পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারিভাবে কোনো ত্রান সামগ্রী পৌঁছেনি পানিবন্দি পরিবারগুলোতে। কয়েক দিনের অতিবৃষ্টি ও বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় কোমেন’র প্রভাবে মেঘনার অতি জোয়ারের তোড়ে রিং বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে দৌলতখানের সৈয়দপুর ইউনিয়নের সাড়ে ৪’শ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। তাদেরই কয়েকজনের এই মানবেতর জীবন।.. ছবি তুলে পাঠিয়েছেন মনিরুজ্জামান মহিন


এ বিভাগের আরো খবর...
বরগুনার পুলিশ লাইন স্কুলে দেয়াল পত্রিকা ‘বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু বরগুনার পুলিশ লাইন স্কুলে দেয়াল পত্রিকা ‘বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু
আলোকযাত্রা ভোলা দলের উদ্যোগে দু’দিনের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন আলোকযাত্রা ভোলা দলের উদ্যোগে দু’দিনের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন
ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
কুয়াকাটায় সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত কুয়াকাটায় সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
পটুয়াখালীর চরমোন্তাজে সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পটুয়াখালীর চরমোন্তাজে সবুজ উপকূল ২০১৭ কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
গাছের চারা লাগিয়ে আলোকযাত্রা বরগুনা দলের বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন পুলিশ সুপার গাছের চারা লাগিয়ে আলোকযাত্রা বরগুনা দলের বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন পুলিশ সুপার
আলোকযাত্রা দলের পাশে আছি, বললেন বরগুনা পুলিশ সুপার আলোকযাত্রা দলের পাশে আছি, বললেন বরগুনা পুলিশ সুপার
আলোকযাত্রা ভোলা দলের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ আলোকযাত্রা ভোলা দলের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ
সবুজ উপকূল ২০১৭-এর আয়োজন উপকূলের ২০ স্থানে সবুজ উপকূল ২০১৭-এর আয়োজন উপকূলের ২০ স্থানে
স্থানীয় বিশিষ্টজনদের মূল্যায়নে সবুজ উপকূল কর্মসূচি স্থানীয় বিশিষ্টজনদের মূল্যায়নে সবুজ উপকূল কর্মসূচি

পানিবন্দি জীবন
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)