জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’

প্রতিবেদক : জুনাইদ আল হাবিব

দুর্যোগের মাত্রাধিক ঝুঁকিতে উপকূল। ঝরছে একের পর এক প্রাণ। প্রাকৃতিক দুর্যোগে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছেই। নিরাপদ নয় আবাসস্থল। কারণটা হয়তো “জলবায়ু পরিবর্তন” বলে অনেকেই উড়িয়ে দেয়। কিন্তু এ জলবায়ু পরিবর্তনের পেছনে যে মানুষের বৈরি আচরণ দায়ী। তা ক’জনেই বা জানার চেষ্টা করেন? আমরাই-বা কতটা সচেতন হচ্ছি? ইটভাটা, শিল্প-কলকারখানার কাবর্ন-ডাই-অক্সাইড গ্যাসের মতো বিষাক্ত পদার্থ আমাদের পরিবেশে মিশছে। পৃথিবীর ওজন স্তর ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বরফ গলে বাড়ছে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা।

বলা হচ্ছে, এমনভাবে চলতে থাকলে এই উচ্চতা এ শতকের মধ্যেই ৪৬০ সেন্টিমিটারে পৌঁছবে! তবে, কীহবে উপকূলের? দ্বীপ ও নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যাবে পানির নিচে। পরিবেশে নেমে আসবে ভয়াবহ এক বিপর্যয়। তাহলে প্রশ্ন হতে পারে, এমন সংকটমুহুর্তে আমরা? কী তার সমাধান?

হ্যাঁ, শুধু উপকূল নয়, অন্ধকারে পতিত হবে পুরো দেশ। আমাদের পরিবেশ সুরক্ষা করতে হবে। রক্ষা করতে উপকূলের সবুজ। যা কার্বন-ডাই-অক্সাইডের মতো বিষাক্ত গ্যাস পরিশোধন করে আমাদের তাজা অক্সিজেন দিতে সক্ষম। এতে জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি কমানো সম্ভব। ইতিমধ্যে জলবায়ু সংকট নিয়ে বিশ্বজুড়ে তুমুল হৈ-চৈ চলছে। আর সেই মুহুর্তেই বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল চলছে সবুজ সুরক্ষার আন্দোলন। যেটির নাম “সবুজ উপকূল” কর্মসূচি। পৃষ্ঠপোষকতা করছে ফার্স্টসিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক।

২০১৫ সাল থেকে ৩ বছর নাগাদ কর্মসূচিটি চলছে। উপকূলের গন্ডি পেরিয়ে কর্মসূচিটি পা রেখেছে রাজধানীতেও। পরিবেশ সচেতনতায় উপকূল পড়ুয়াদের সচেতনতা বাড়িয়ে উপকূলের সবুজ সুরক্ষা। পাশাপাশি পড়ুয়াদের তথ্য সমৃদ্ধ করার প্রয়াস অব্যাহত রয়েছে। কর্মসূচিটির ছোঁয়ায় ইতিমধ্যে উপকূল অঞ্চলে ব্যাপক পরিবর্তন আনা সম্ভব হয়েছে।

পড়ুয়ারা দলবেঁধে দেয়ালপত্রিকা “বেলাভূমি”তে লেখালেখির মাধ্যমে সৃজনশীল ও সামাজিক কার্যক্রমে অভ্যাস গড়ে উঠেছে ওদের। প্রান্তিকের পড়ুয়ারা তথ্যে সমৃদ্ধ হচ্ছে। কর্মসূচিটির কল্যাণেই তৈরি হয়েছে একঝাঁক খুদে উপস্থাপক ও বক্তা। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা ও দর্শকদের তাক লাগিয়ে বক্তব্য দেওয়ার মাধ্যমে বিকশিত হচ্ছে ওদের প্রতিভা। ভবিষ্যৎ জীবন গঠনের স্বপ্ন হাতছানি দিয়ে ডাকছে ওদের। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ওরা নিজেরাই তৈরি করে সবুজ সম্পর্কে গান, নাটক, কৌতুক। যার মাধ্যমে পরিবেশ সচেতনতা বাড়ানোর মাধ্যমে উপকূলে দুর্যোগের ঝুঁকির পরিমাণ অনেকটা কমিয়ে আনা সম্ভব।

অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে গাছের চারা লাগানো হয় ভেন্যুস্থ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে। কর্মসূচি পরবর্তিতে ওই স্থানের দৃশ্যে যোগ হয় সবুজের সমারোহ। বদলে যায় ওই ক্যাম্পাসের চেহারা। উদারহরণ হিসেবে বলা যেতে পারে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের দু’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কথা। তোরাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে কর্মসূচিটির আগে কোন সবুজ গাছের দেখা মিলেনি। কিন্তু কর্মসূচি বাস্তবায়নের পর ওখানকার প্রকৃতি এখন মনোমুগ্ধকর। কর্মসূচির আওতায় গাছ লাগানোর পর পরই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও প্রাক্তণ ছাত্ররা গাছ লাগাতে নিজেরা এগিয়ে এসেছেন। রোপণ করা গাছ এখন আকাশ ছুঁয়েছে। ছায়া দিচ্ছে শিক্ষার্থী ও মাঠে খেলা দেখতে আসা দর্শকদের। যেখানে ছিলো রোদের তীব্রতা, সেখানে এখন সবুজ পরিবেশ।

তেমনি চির সবুজে এখন ভরপুর একই উপজেলার ফজু মিয়ারহাট উচ্চবিদ্যালয়ে। বিদ্যালয়ের পাশ ঘেঁষে যাওয়া বেড়ির পাশেই “সবুজ উপকূল” কর্মসূচির গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে। শ্রেণি কক্ষের পাশে লাগানো সারি সারি গাছ এখন অনেক বড় হয়েছে। যারা ওই কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে তারাও ওই সবুজ বৃক্ষের সুরক্ষায় সজাগ।

তাদেরই মধ্যে মাহমুদুল হাসান লাতু ও জহিরুল ইসলাম অন্যতম। দু’জনকেই সবুজ যোদ্ধা বলা যেতে পারে। লাতু এখন লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণিতে আর জহিরুল একই কলেজের একাদশ শেণিতে। দু’জনেই প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ করেছিলো তাদের বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত “সবুজ উপকূল-১৫”কর্মসূচিতে। লাতু বক্তব্য দিয়েছে আর জহিরুল সৃজনশীল প্রতিযোগিতায় পুরস্কার জিতেছে। তারা এখন নিয়মিত গাছ লাগায়, গাছের সুরক্ষায় উদ্বুদ্ধ করে অন্যদের।

এ উদাহরণ উপকূল পরিবর্তনের এক খন্ড গল্প মাত্র। এ রকম আরো বহু গল্প ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে “সবুজ উপকূল” কর্মসূচিকে ঘিরে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উপকূল যে ঝুঁকিতে আছে, তা কমে আসবে এ ধরণের সচেতনতামূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে। লাগানো গাছ বাঁচিয়ে রাখা হবে, নতুন করে গাছ লাগানো হবে। আর ঠিক এভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে উপকূল। টেকসই হবে উপকূলের মানুষের জীবনযাত্রা।

//প্রতিবেদন/২৫১১২০১৬//


এ বিভাগের আরো খবর...
‘কুকরির জনারণ্যে সম্প্রীতির সুবাতাস’ -আবুল হাসেম মহাজন ‘কুকরির জনারণ্যে সম্প্রীতির সুবাতাস’ -আবুল হাসেম মহাজন
বরগুনায় বাণিজ্যিক সূর্যমুখী চাষে লাভবান কৃষক বরগুনায় বাণিজ্যিক সূর্যমুখী চাষে লাভবান কৃষক
পাইকগাছার পড়ুয়ারাদের প্রকৃতিপাঠ, সবুজে গড়ছে জীবন পাইকগাছার পড়ুয়ারাদের প্রকৃতিপাঠ, সবুজে গড়ছে জীবন
উপকূলের উদীয়মান সংবাদকর্মী ছোটন সাহা’র ছুটে চলার গল্প উপকূলের উদীয়মান সংবাদকর্মী ছোটন সাহা’র ছুটে চলার গল্প
কমলনগরে পড়ুয়াদের সবুজ জগত, অনুপ্রেরণায় ‘সবুজ উপকূল’ কমলনগরে পড়ুয়াদের সবুজ জগত, অনুপ্রেরণায় ‘সবুজ উপকূল’
শ্যামনগরে পড়ুয়ারা গড়ে তুলেছে পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলন শ্যামনগরে পড়ুয়ারা গড়ে তুলেছে পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলন
জনতার প্রিয় মানুষ এমপি মুকুল জনতার প্রিয় মানুষ এমপি মুকুল
একুশে বইমেলায় সাংবাদিক ছোটন সাহার ‘মেঘের আঁধারে’ একুশে বইমেলায় সাংবাদিক ছোটন সাহার ‘মেঘের আঁধারে’
‘সমৃদ্ধশালী মডেল ঢালচর গড়তে চাই’ : আবদুস সালাম হাওলাদার ‘সমৃদ্ধশালী মডেল ঢালচর গড়তে চাই’ : আবদুস সালাম হাওলাদার
কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত

জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)