পর্যটকের ভিড় বাড়ছে লক্ষ্মীপুরের মতিরহাট মেঘনাতীরে

- জুনাইদ আল-হাবিব

মতিরহাট মেঘনাতীর

কমলনগর, লক্ষ্মীপুর: “বিশাল নারিকেল-সুপারির বাগান, আশপাশে আছে প্রচুর সোনালি ধান, মতিরহাটে এসে ঝিলিক দেয়া তাজা ইলিশ বাড়িতে নিয়ে মজা করে খান। মেঘনার মৃদু আঁকা-বাঁকা কূল, মায়া আর সৌন্দর্য্যে ঘেরা লক্ষ্মীপুরের উপকূল।”

এমনই অনাবিল সৌন্দর্য্যের রূপ নিয়ে জেগে আছে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের চর কালকিনি ইউনিয়নের প্রাণকেন্দ্রের মতিরহাট মেঘনাতীর। যেখানে দেশের বৃহৎ পর্যটনকেন্দ্রগুলোর মিল খুঁজে পাওয়া যায়। ঈদ কিংবা যেকোন অবকাশ যাপনে পর্যটকদের কাছে তাই মতিরহাটের নাম ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তাইতো প্রকৃতির টানে প্রতিদিন অসংখ্য পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত উপকূলের এই প্রান্তিক অঞ্চলটি।

মতিরহাটের মেঘনাতীরে রয়েছে মেঘনার কূল ঘেঁষা প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের মন মাতানো এক পরিবেশ। রয়েছে নির্মল বাতাস। মেঘনার কূলেমাটি-বালু কণা অথবা ইট-পাথরের ব্লকে হাঁটা ও আড্ডা ভালো জমবে। এখানে এলে অল্প খরচে নৌকার মাধ্যমে মতিরহাট সংলগ্ন মেঘনার বুকে জেগে উঠা চর দেখা যাবে। নারিকেল-সুপারির বিশাল আকৃতির বাগান দেখা যাবে, মেঘনার বুকে দাঁড়িয়ে থাকা মতিরহাট বাজার জামে মসজিদটিও দেখা যাবে। এখানে রয়েছে বৃহত্তর নোয়াখালীর অন্যতম বৃহৎ মতিরহাট ইলিশ ঘাট। খাওয়া-দাওয়ার জন্য ভালো হোটেলের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। এখানে এলে দেখা যাবে জলে ভাসা মানুষের জীবন-সংগ্রাম। আর যাওয়ার সময় উপহার হিসাবে নেওয়ার জন্য মেঘনার ঝিলিক ছড়ানো রূপালী তাজা ইলিশ তো আছেই।

স্থানটি সংলগ্ন বাগানগুলোতে আরো চোখে পড়বে জেলার ঐতিহ্য গাঁথা নারিকেল আর সুপারির আকর্ষণ। মতিরহাট মেঘনা সী বীচে পা রাখলে মেঘনার উত্তাল ঢেউ আর দক্ষিণা বাতাসের ছোঁয়ায় মানুষের মনে আসে অন্যরকম ছোঁয়া। চারদিকের অবাক করা প্রাকৃতিক দৃশ্যে অনেকের ভেতরে কবিমন নাড়া দেয়। এখানে পর্যটকেরা আসতে পারেন যেকোন সময়। যে কোন মুহুর্তে যে কেউ এই দর্শনীয় স্থানটি দেখে যেতে পারেন।

সম্প্রতি বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ থেকে একটি দ্বি-তলফেরী সার্ভিসে করে মতিরহাট মেঘনাতীরে ভ্রমণে আসেন ৭০ সদস্যের তরুণ টিম। নৌ-পথে বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ থেকে সকালে রওনা হয়ে মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যে কাঙ্খিত মতিরহাট মেঘনাতীরে এসে পৌঁছে তারা। দুপুরের খাবার রান্না হয় স্থানীয় মতিরহাট উচ্চ বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। এরপর কয়েক ঘণ্টা মতিরহাট মেঘনাতীরের প্রাণ জুড়ানো দর্শনীয় স্থানগুলোতে ছুটে চলেছেন তারা।ভ্রমণ শেষে সূর্যাস্তের সময় বিদায়ের ক্লান্তিলগ্নে সাক্ষাত মোঃ শাহিন আলম নামে ২৫ বছরের এক তরুণের সাথে। তিনি বলেন, “বন্ধুদের সঙ্গে অবসর সময়ে ছুটিতে ভ্রমনে এসে অনেক আনন্দই উপভোগ করলাম। স্থানটি সম্পর্কে জানতে পেরে খুব দ্রুতই আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিলাম এখানে (মতিরহাট মেঘনাতীর) আসবো। আমাদের ভ্রমন সফল ও স্বার্থক হয়েছে।’’

আরেকজন, লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান সিলেট ক্যাডেট মাদ্রাসার বাংলা প্রভাষক ও লেখক আহমদ হোসাইন। কর্মসূত্রে দীর্ঘ দিন সিলেটেই জীবনযাপন তার। কিছু দিনআগে তিনিও জন্মস্থান লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে সফরেএসেছেন। হঠাৎ মনে পড়ে তার মতিরহাট নামক দর্শণীয় স্থানটির কথা। সময় সংকট, তবুও ছুটে আসেন। নৌকা যোগে মতিরহাট চর দেখতে যান।

লেখক আহমদ হোসাইন নিজের ভ্রমণ অভিজ্ঞতা বিষয়ে বলেন, ‘‘জন্ম স্থানের এই মনোমুগ্ধকরা স্থানটি অনেক দিন ধরে আমার নাগালের বাইরে। হঠাৎ করে সময় সুযোগে ছোট বেলার স্মৃতি জড়ানো স্থানটি দেখতে পেরে খুবভালোই লাগলো।’’

ঢাকা’র সাভারে থাকেন উত্তর মার্টিনের আরেকজন তরুণ ক্যাপ্টেন রাজু। তিনি বলেন, ‘‘এই ঈদে গ্রামে আসতে পারি। মেঘনাতীরের মতিরহাট ঘুরতে যাবো। সবার সঙ্গে ঘুরবো মনমুগ্ধকরা দর্শনীয় স্থানটিতে ‘’

উপকূলের এই মনোমুগ্ধকরা পর্যটন স্পটটি সম্পর্কে বৃহত্তর নোয়াখালীর অন্যতম বৃহৎ মতিরহাট ইলিশ ঘাটের সভাপতি ও তরুণ উদ্যমী স্থানীয় ইউপি সদস্য মেহেদী হাসান লিটন বলেন, ‘‘আমাদের আর লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে কক্সবাজার যাওয়ার প্রয়োজন নেই। ঘরের কাছেই মনের মত দৃশ্য মতিরহাট মেঘনাতীর। প্রতিবছর ঈদের সময় এখানে লাখো মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয় এই অঞ্চল। আমরা আশারাখি, ভ্রমণ পিপাসু মানুষের ঢল নামবে এবারো।’’

পর্যটনের অপার সম্ভাবনার হাতছানি মতিরহাটে। এখানকার মনোমুগ্ধ করা প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের অবাক করা দৃশ্য হৃদয়কে নাড়া দেয় প্রতিক্ষণ। দর্শনীয় এ স্থানটি দেখতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটকদের আগমন ঘটে। কখনো বিদেশী পর্যটকদেরও পা পড়ে মতিরহাটের মেঘনাতীরে। এলাকার মানুষের দাবি, সড়ক সংস্কার করে এই স্থানটিকে পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে গড়ে তোলা হোক।

//প্রতিবেদন/২৫০৬২০১৭//


এ বিভাগের আরো খবর...
কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত
তৃতীয়বারের মত ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন রফিকুল ইসলাম মন্টু তৃতীয়বারের মত ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন রফিকুল ইসলাম মন্টু
জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’ জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’
সবুজ উপকূল, সাগরপাড়ে আলোর হাতছানি সবুজ উপকূল, সাগরপাড়ে আলোর হাতছানি
‘সবুজ উপকূল’ পড়ুয়াদের সৃজনশীল মেধার বিকাশ ঘটাচ্ছে ‘সবুজ উপকূল’ পড়ুয়াদের সৃজনশীল মেধার বিকাশ ঘটাচ্ছে
‘সবুজ উপকূল’-এর পথে হাঁটছে অসংখ্য সবুজযোদ্ধা ‘সবুজ উপকূল’-এর পথে হাঁটছে অসংখ্য সবুজযোদ্ধা
উপকূল বাঁচিয়ে রাখতে ‘সবুজ উপকূল’ মাইলফলক উপকূল বাঁচিয়ে রাখতে ‘সবুজ উপকূল’ মাইলফলক
উপকূলের তরুণদের প্রকাশের আলোয় আনছে ‘সবুজ উপকূল’ উপকূলের তরুণদের প্রকাশের আলোয় আনছে ‘সবুজ উপকূল’
সবুজ উপকূল, জেগে উঠছে আগামী প্রজন্ম সবুজ উপকূল, জেগে উঠছে আগামী প্রজন্ম
লক্ষ্মীপুরে সকল শিক্ষাঙ্গনে লাইব্রেরি গড়ে তোলার দাবি লক্ষ্মীপুরে সকল শিক্ষাঙ্গনে লাইব্রেরি গড়ে তোলার দাবি

পর্যটকের ভিড় বাড়ছে লক্ষ্মীপুরের মতিরহাট মেঘনাতীরে
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)