উপকূল আলোকচিত্র প্রদর্শনী, রফিকুল ইসলাম মন্টু’র ছবির গল্প

- প্রতিবেদন উপকূল বাংলাদেশ

রফিকুল ইসলাম মন্টু

ঢাকা : রাজধানীর ঢাকায় দৃক গ্যালারিতে ‘উপকূল আলোকচিত্র’ প্রদর্শনীতে উপকূলের বিপন্নতা তুলে ধরলেন উপকূল-সন্ধানী সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম মন্টু। ২৬ এপ্রিল ২০১৭ বুধবার থেকে ৩দিনব্যাপী এ প্রদর্শনী শেষ হয় ২৮ এপ্রিল শুক্রবার। শুরুর দিন থেকেই প্রদর্শনীতে ব্যাপক দর্শক সমাগম ঘটে। দেশি দর্শনার্থীর পাশাপাশি উপকূলের ছবি দেখতে অাসেন বিদেশি নাগরিকগণ। গবেষক, গণমাধ্যমের প্রতিনিধি, উন্নয়নকর্মী, বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশার নাগরিকগণ উপকূলের আলোকচিত্র দেখতে প্রদর্শনীতে ভিড় করেন।

জলবায়ু পরিবর্তনে বিপন্ন উপকূলের চিত্র সবার সামনে তুলে ধরতে শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ক্রিশ্চিয়ান কমিশন ফর ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ-সিসিডিবি রাজধানীতে প্রথমবারের মত উপকূল বিষয়ে এ চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে। প্রদর্শনীতে চারজন আলোচিত্রী-সাংবাদিকের তোলা ছবি স্থান পেয়েছে। এরা হলেন, দীন মোহাম্মদ শিবলী, রফিকুল ইসলাম মন্টু, হাবিব তরিকুল ও নাইমুল ইসলাম।

রফিকুল ইসলাম মন্টুর তোলা ছবি

প্রদর্শনীতে এমন অনেকেই ছবি দেখতে এসেছিলেন, যারা বাস্তবে কখনোই উপকূল দেখেননি। সংবাদপত্র আর টেলিভিশনে হয়তো বিপন্নতার খবর দেখেছেন। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের খবর পড়েছেন। আবার কেউ হয়তো উপকূলের কোন পর্যটন এলাকায় বেড়াতে গেছেন। কিন্তু উপকূলের মানুষের দুর্দশার চিত্র সেভাবে দেখা হয়ে ওঠেনি। রাজধানীর দৃক গ্যালারিতে ‘উপকূল আলোকচিত্র প্রদর্শনী’ থেকে অনেকেই জানতে পারলেন উপকূলের জীবনযাত্রার অজানা কাহিনী।

বাংলাদেশের সমগ্র উপকূল অঞ্চল ঘুরে কর্মরত সাংবাদিক রফিকুলইসলাম মন্টু’র বেশ কয়েকটি ছবি স্থান পায় রাজধানীতে প্রথমবারের মত উপকূল নিয়ে এ আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে। তার কয়েকটি ছবির গল্পএখানে তুলে ধরা হলো।

রফিকুল ইসলাম মন্টুর তোলা ছবি

ক্ষতবিক্ষত বেড়িবাঁধ

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর আঘাতে ক্ষতবিক্ষত বেড়িবাঁধ। ক্ষতি ফসলের ও বাড়িঘরের। নোনাপানির ঝাপটায় বহু জমি পতিত। অভাব কর্মসংস্থানের। বহু মানুষ কাজের খোঁজে শহরে। জলবায়ু পরিবর্তনে ঘূর্ণিঝড়ের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার চাপ জনজীবনে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব ঠেকাতে যথাযথ প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম জোরদার নয়। কয়েকবার জোড়াতালির সংস্কার-পুন:নির্মাণ; তবুও সুরক্ষা হয়নি। নিরাপত্তাহীনতায় বসবাস। খানখানাবাদ, বাঁশখালী, চট্টগ্রাম ২০১৬



জ্বালানি সংগ্রহ

রোকেয়া বেগম (৩২)। জোয়ারের পানিতে ভেসে আসা জ্বালানি সংগ্রহ করছেন। প্রবল জলোচ্ছাসে বহু মানুষ ঘরহারা। অনেকের ঠাঁই রাস্তার পাশে। অন্যান্য অভাবের সঙ্গে যোগ হয় তীব্র জ্বালানি সংকট। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উপকূলের দ্বীপ এলাকায় জলোচ্ছ¡াসের তীব্রতা বেড়েছে। জোয়ারের পানিতে তখন বেড়িবাঁধ ধ্বসে গ্রামের পর গ্রাম ভেসে যায়। মানুষজন নি:স্ব হয়। দক্ষিণ সাকুচিয়া, মনপুরা, ভোলা ২০১৪



রফিকুল ইসলাম মন্টুর তোলা ছবি

পানি সংরক্ষণাগার

শেফালি বেগম (৩০)। মেঘনা ভাঙণের শিকার এক নারী। ঘরের সবকিছুর সঙ্গে বিশুদ্ধ খাবার পানি সংরক্ষণাগারটিও নি:শেষ হতে চলেছে দেখে তার কষ্ট। ভাঙণে পরিবারটি চরম আর্থিক সংকটে। অন্যান্য সংকটের সঙ্গে ছিল বিশুদ্ধ খাবার পানির তীব্র সংকট। জলবায়ু পরিবর্তনে বেড়েছে ভাঙণ। আর এতে বিলীন হয়েছে গভীর নলকূপ। খাবার পানি সংকট মোকাবেলায় ঘরে রাখা বড় পাত্রে কয়েকদিনের পানি রাখা যেতো। এভাবেই ভাঙণে নি:শেষ হচ্ছে তিলে তিলে গড়া ঘরের সব সম্পদ। সেবাগ্রাম, রামগতি, লক্ষ্মীপুর.. ২০১৩

যাতায়াতে ভোগান্তি

যাতায়াতে ভোগান্তি। বিপন্ন এলাকায় জেটি নির্মাণ করেও যাত্রী ভোগান্তি লাঘব হচ্ছে না। নির্মাণের পর জলোচ্ছ¡াস জেটির ব্যাপক ক্ষতি করে। ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু বাড়িয়ে দেয়া মানুষের দুর্ভোগ। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে জলোচ্ছ্বাস ও জোয়ারের স্রোতের তীব্রতা বেড়েছে। এরফলে নদী ভাঙণের পাশাপাশি যোগাযোগ ব্যবস্থাও বিপন্ন। এরফলে প্রতিদিন হাজারো মানুষ চরম ভোগান্তিতে গন্তব্যে ফিরে। আকবর বলী ঘাট, কুতুবদিয়া, কক্সবাজার.. ২০১৭



রফিকুল ইসলাম মন্টুর তোলা ছবি

নিশ্চিহ্ন বসতি

ভাঙণে নিশ্চিহ্ন বসতি। যেখানে ছিল বসতি, সেখানে এখন মেঘনার ঢেউ। একের পর এক বাড়ি সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে অন্যত্র। বহু মানুষ হচ্ছে বসতিহীন। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে মেঘনার ভাঙণের তীব্রতা বাড়ে, সেইসঙ্গে বিলীন হয় গ্রামের পর গ্রাম। বহু মানুষ অন্যত্র ছুটেছে। সহায়-সম্বলহীন মানুষেরা সব হারিয়ে পথে। ভাঙণ গিলেছে বহু ফসলি জমি। প্রভাব পড়ছে জীবনজীবিকায়। ভাঙণ রোধে পদক্ষেপ নেওয়া হলেও তা কার্যকর হচ্ছে না। ইলিশা গ্রাম, ভোলা সদর, ভোলা.. ২০১৬



বিপন্ন দ্বীপ

সমুদ্র থেকে আসা প্রবল স্রোতে বেড়িবাঁধ ভেঙে যায়। চলাচল অনুপযোগী সড়ক। মরে গেছে গাছপালা। জমিতে ফসল হয় না। আগে যেখানে যাতায়াতে মাধ্যম ছিল সড়ক, সেখানে এখন দীর্ঘপথ নৌকায় যেতে হয়। জলবায়ু পরিবর্র্তনের প্রভাবে বাঁধ ভাসিয়ে নিয়ে বাড়াচ্ছে ভোগান্তি। আগে স্বাভাবিক জোয়ারে তেমন কোন ক্ষতি না করলেও এখন তীব্রতা বেড়েছে। এর প্রভাবে বহু মানুষ এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ছুটছেন। শাহপরীর দ্বীপ, টেকনাফ, কক্সবাজার.. ২০১৪



রফিকুল ইসলাম মন্টুর তোলা ছবি

নিশ্চিহ্ন মাছঘাট

মেঘনাতীরের হাারিয়ে যাওয়া মাছঘাট। দিনভর কোলাহলমূখর স্থানটি এখন বিরাণ। এখন আর জেলেরা এখানে ইলিশ নিয়ে আসে না। ক্রেতা ভিড় করে না। ঘাটের শেষ সীমানায় দাঁড়িয়ে মানুষের কষ্টের নি:শ্বাসটুকুই অবশিষ্ট। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ভাঙণ, আর এরফলে কয়েকবার ঘাট স্থানান্তর। অবশেষে ঘাট বিলুপ্ত। হারিয়ে গেছে মাছঘাটের সেই চিরচেনা কোলাহল। সেইসঙ্গে ওলটপালট জীবন জীবিকা। কাজ হারানো মানুষেরা অন্য পেশায়। চডার মাথা মাছঘাট, ইলিশা, ভোলা সদর, ভোলা.. ২০১৬



বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ

প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় সিডরে বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ। কয়েকবার জোড়াতালির পুন:নির্মান হলেও পানি প্রবেশ বন্ধ হয়নি। ভাসে বাড়িঘর, ফসলি জমি। ভোগান্তি বছরের পর বছর। লবণ পানি ফসলি জমিকে পরিণত করেছে পতিত জমিতে। পুকুরের মাছ ভেসে যাচ্ছে। বাড়িঘর ডুবছে পানিতে। বহু মানুষ এলাকা ছেড়ে কাজের সন্ধানে অন্যত্র। নাজুক যোগাযোগ ব্যবস্থা। জলবায়ু পরিবর্তন এভাবেই ডেকে আসছে বিপদ। নিজামপুর গ্রাম, কলাপাড়া, পটুয়াখালী.. ২০১৬



রোয়ানু বিপন্নতা

বাড়ির পেছনেই সমুদ্র। ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর ধাক্কায় প্রবল বেগে পানি ঢুকেছিল এই বাড়ির ওপর দিয়ে। ঘর ভেসে গেছে, পুকুরের মাছ চলে গেছে, গাছপালা মরে গেছে, মাটিতে জমেছে লবণের স্তর। এ বাড়িতে এখন আর বসবাসের সুযোগই নেই। তাইতো অন্যত্র আশ্রয়। বাঁধ না থাকায় এখনও সমুদ্রের লবণ পানিতে ভাসে এই জনপদ। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে উপকূলের মানুষেরা এভাবেই তাড়িত হচ্ছে। উত্তর ধূরুং, কুতুবদিয়া, কক্সবাজার.. ২০১৬

//প্রতিবেদন/২৯০৪২০১৭//


এ বিভাগের আরো খবর...
আলোকযাত্রা পাইকগাছা দলের সদস্যদের লেখা নিয়ে সাহিত্য পত্রিকা কনকাঞ্জলি’র বিশেষ আয়োজন আলোকযাত্রা পাইকগাছা দলের সদস্যদের লেখা নিয়ে সাহিত্য পত্রিকা কনকাঞ্জলি’র বিশেষ আয়োজন
পাইকগাছা আলোকযাত্রা দল পালন করলো বিশ্ব জাদুঘর দিবস পাইকগাছা আলোকযাত্রা দল পালন করলো বিশ্ব জাদুঘর দিবস
কমলনগরের ফজু মিয়ারহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র আরও একটি সংখ্যা প্রকাশ কমলনগরের ফজু মিয়ারহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র আরও একটি সংখ্যা প্রকাশ
উপকূলের পড়ুয়াদের সংগঠণ আলোকযাত্রা’র উদ্যোগে ঢাকায় দিনব্যাপী কর্মশালা উপকূলের পড়ুয়াদের সংগঠণ আলোকযাত্রা’র উদ্যোগে ঢাকায় দিনব্যাপী কর্মশালা
টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে আলোকযাত্রা দলের যাত্রা শুরু টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে আলোকযাত্রা দলের যাত্রা শুরু
কমলনগরের ফলকন উচ্চ বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু কমলনগরের ফলকন উচ্চ বিদ্যালয়ে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু
নোয়াখালীর হাতিয়ার চরচেঙ্গায় আলোকযাত্রা দলের যাত্রা শুরু নোয়াখালীর হাতিয়ার চরচেঙ্গায় আলোকযাত্রা দলের যাত্রা শুরু
কমলনগরের হাজীরহাটে ব্যতিক্রমী আয়োজনে ‘বিশ্ব মা দিবস’ পালন করল আলোকযাত্রা দল কমলনগরের হাজীরহাটে ব্যতিক্রমী আয়োজনে ‘বিশ্ব মা দিবস’ পালন করল আলোকযাত্রা দল
জাতিসংঘ গ্লোবাল কমপ্যাক্টকে প্রভাবিত করতে জলবায়ুতাড়িত বাস্তুচ্যুতি বিষয়ে সরকার ও নাগরিক সমাজকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে জাতিসংঘ গ্লোবাল কমপ্যাক্টকে প্রভাবিত করতে জলবায়ুতাড়িত বাস্তুচ্যুতি বিষয়ে সরকার ও নাগরিক সমাজকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে
কমলনগরে গ্রামবাসীর যৌথ উদ্যোগে নির্মিত হলো বৃহৎ সাঁকো কমলনগরে গ্রামবাসীর যৌথ উদ্যোগে নির্মিত হলো বৃহৎ সাঁকো

উপকূল আলোকচিত্র প্রদর্শনী, রফিকুল ইসলাম মন্টু’র ছবির গল্প
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)