সবুজ উপকূল ২০১৬, বেলাভূমি ওদের লেখালেখির দরজা খুলে দিয়েছে

শেখ মোহাম্মদ আলী

শেখ মোহাম্মদ আলী

শরণখোলা, বাগেরহাট : ওরা এখন অনেক উজ্জিবিত ও প্রাণবন্ত। ক্রমাগত লেখালেখিতে উৎসাহিত হয়ে পড়েছে । ইতোমধ্যে ওরা দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র বেশ কয়েকটি সংখ্যাও প্রকাশ করেছে । হ্যাঁ, বলছিলাম সিডর বিধ্বস্ত জনপদ বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রাজাপুর  মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের কথা । ২০১৫ সালের সফলতার পথ ধরে এবার ২০১৬ সালেও বাস্তিবায়িত হলো সবুজ উপকূল কর্মসূচি।

‘‘সবুজ বাঁচাই, সবুজে বাঁচি” এ স্লোগান নিয়ে “উপকুল বাংলাদেশ” নামের সংগঠন উপকূল জুড়ে ‘‘সবুজ উপকুল ২০১৫’’ নামে একটি ব্যতিক্রমধর্মী কর্মসূচি শুরু করে। এতে পৃষ্ঠপোষকতা দেয় ‘‘ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক’’। প্রথম বছর উপকূলের ১০ জেলার ১৩ উপজেলার ১৫টি ভেন্যুতে এ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হয়। আর অংশগ্রহনকারী বিদ্যালয়ের সংখ্যা ছিল ৪০। আর ২০১৬ সালে এই কর্মসূচির পরিধি বেড়ে যায় অনেকখানি। এবার ১৪ জেলার ২৫ উপজেলার ২৬টি ভেন্যুতে বাস্তবায়িত হচ্ছে সবুজ উপকূল। বিদ্যালয়ের সংখ্যা ১১৬ আর অংশগ্রনকারী ছাত্রছাত্রী প্রায় ৮০ হাজার।

গোটা কার্যক্রমটাই লেখালেখি আর সৃজনশীল মেধাবিকাশ কেন্দ্রিক। আর এর ভেতর দিয়েই পড়ুয়ারা পরিবেশ সচেতন হয়ে ওঠে। ব্যতিক্রমীধারার এই কর্মসূচির মূল কেন্দ্রে “বেলাভূমি” নামের দেয়াল পত্রিকা। এরসঙ্গে থাকে রচনা লিখন, পত্র লিখন, ছড়া ও কবিতা লিখন, চিত্রাংকনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা থাকে।

এবার ২৯ আগষ্ট সোমবার শরণখোলার রাজাপুরে দ্বিতীয়বারের মত সবুজ উপকূল কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো। এরআগে ২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর এখানে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সবুজ উপকূল ২০১৬ কর্মসূচি উপলক্ষে বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের কাঁচা হাতে লেখা ছড়া, কবিতা, চিঠি, ছোট গল্প ও ছবি আঁকা নিয়ে প্রথম প্রকাশিত হয় দেয়াল পত্রিকা ‘‘বেলাভূমি’’। ব্যতিক্রমধর্মী দেয়াল পত্রিকাটি প্রকাশের পরে অভিভাবক, শিক্ষকমন্ডলী ও সকল শিক্ষার্থীর মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়ে যায়। সকলে এ ধরনের দেয়াল পত্রিকা প্রকাশের ভূয়সী প্রশংসা করেন ।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নান্না মিয়া অভিব্যক্তি ব্যক্ত করে বলেন, তার বিদ্যালয়ের ছেলে মেয়েরা এত ভাল লিখতে পারে তা তার আগে জানা ছিলোনা। তিনি এ ধরনের উদ্যোগ অব্যাহত রাখবেন বলে মত প্রকাশ করেন।

এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম হাবিবুর রহমান জোমাদ্দার বলেন, দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি প্রকাশ নিঃসন্দেহে প্রশংসার কাজ। এটা নিয়মিত বের হলে ছেলে মেয়েদের সাহিত্য চর্চা যেমনি বাড়বে তেমনি তাদের মেধার বিকাশ ঘটবে।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জসিমউদ্দিন, মাশরাফি হাসান শিহাব, আফিফা আক্তার নিপা ও মালা রানী সিকদার জানায়, ‘‘বেলাভূমি’’ ওদের লেখালেখির দরজা খুলে দিয়েছে। ওরা বেলাভূমির অব্যাহত অগ্রযাত্রা কামনা করে।

এখন আর কোন কর্মসূচির জন্য অপেক্ষা করে না রাজাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। বিভিন্ন দিবস ছাড়াও প্রায় প্রতিমা্সেই দেয়াল পত্রিকা ‘‘বেলাভূমি’’ প্রকাশের উদ্যোগ অব্যাহত রাখছে তারা। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দিয়েছে পড়ুয়াদের মেধা বিকাশের লক্ষ্যে দেয়াল পত্রিকা প্রকাশের এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

লেখক : শেখ মোহাম্মদ আলী, সংগঠক, সবুজ উপকূল কর্মসূচি, শরণখোলা ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, শরণখোলা প্রেসক্লাব, বাগেরহাট


এ বিভাগের আরো খবর...
জনতার প্রিয় মানুষ এমপি মুকুল জনতার প্রিয় মানুষ এমপি মুকুল
একুশে বইমেলায় সাংবাদিক ছোটন সাহার ‘মেঘের আঁধারে’ একুশে বইমেলায় সাংবাদিক ছোটন সাহার ‘মেঘের আঁধারে’
‘সমৃদ্ধশালী মডেল ঢালচর গড়তে চাই’ : আবদুস সালাম হাওলাদার ‘সমৃদ্ধশালী মডেল ঢালচর গড়তে চাই’ : আবদুস সালাম হাওলাদার
কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত কুয়াকাটায় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সাংবাদিক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত
তৃতীয়বারের মত ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন রফিকুল ইসলাম মন্টু তৃতীয়বারের মত ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন রফিকুল ইসলাম মন্টু
জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’ জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘সবুজ উপকূল’
সবুজ উপকূল, সাগরপাড়ে আলোর হাতছানি সবুজ উপকূল, সাগরপাড়ে আলোর হাতছানি
‘সবুজ উপকূল’ পড়ুয়াদের সৃজনশীল মেধার বিকাশ ঘটাচ্ছে ‘সবুজ উপকূল’ পড়ুয়াদের সৃজনশীল মেধার বিকাশ ঘটাচ্ছে
‘সবুজ উপকূল’-এর পথে হাঁটছে অসংখ্য সবুজযোদ্ধা ‘সবুজ উপকূল’-এর পথে হাঁটছে অসংখ্য সবুজযোদ্ধা
উপকূল বাঁচিয়ে রাখতে ‘সবুজ উপকূল’ মাইলফলক উপকূল বাঁচিয়ে রাখতে ‘সবুজ উপকূল’ মাইলফলক

সবুজ উপকূল ২০১৬, বেলাভূমি ওদের লেখালেখির দরজা খুলে দিয়েছে
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)