জলবায়ু পরিবর্তন, উপকূল জুড়ে উদ্বাস্তু মানুষের লাইন দীর্ঘ হচ্ছে

267364_105766432911916_968915271_n.jpgপ্রবাল বড়ুয়া ও মোহাম্মদ শাহজাহান।। বাংলাদেশ বিশ্বব্যাপী জলবায়ু বিপদাপন্ন দেশ হিসাবে স্বীকৃত যা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রকট হচ্ছে। বিশেষ ভূ-প্রাকৃতিক অবস্থানের কারণে বাংলাদেশকে প্রাকৃতিক দূর্যোগের সম্মুখীন হতে হয়। যার মধ্যে বন্যা, ঝড়, ঘূর্নিঝড়, খরা উল্লেখযোগ্য। এই সকল দূর্যোগের কারণে সম্পত্তি ও সম্পদের ক্ষতিসহ মানুষের প্রাণহানি ও জীবন জীবিকা বিপন্ন হয়। বসতবাড়ি ও জমিজমা হারিয়ে এসব মানুষ ও গোষ্ঠী সর্বস্বান্ত হচ্ছে।

আশংকা করা হয়, যে সকল দূর্যোগের কারণে স্থান পরিবর্তন বাড়ছে তার মাত্রা ভবিষ্যতে আরো বেড়ে যেতে পারে। গড়ে প্রতি বছর দেশের প্রায় এক চতুর্থাংশ এলাকা বন্যার পানিতে নিমজ্জিত থাকে এবং প্রতি চার থেকে পাঁচ বছরে একবার মারাত্বক বন্যায় দেশের ৬০ শতাংশ এলাকা প্লাবিত হয়। গড়ে বাংলাদেশে প্রতি ৩ বছরে একটি বড় ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে যা ঘন্টায় ১০০ মাইলের অধিক বাতাসের তীব্রতা সম্পন্ন ও কয়েক মিটারের অধিক উঁচু জলোচ্ছাসের সৃষ্টি করে।

বাংলাদেশ বিশ্বব্যাপী জলবায়ু বিপদাপন্ন দেশ হিসাবে স্বীকৃত যা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রকট হচ্ছে। বিশেষ ভূ-প্রাকৃতিক অবস্থানের কারণে দেশটিকে প্রাকৃতিক দূর্যোগের সম্মুখীন হতে হয়। বন্যা, ঝড়, ঘূর্নিঝড়, খরা উল্লেখযোগ্য। এইসব দূর্যোগে সহায়-সম্পত্তি, বসতবাড়ি ও জমিজমা হারিয়ে বহু মানুষ সর্বস্বান্ত হচ্ছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত বিশ্লেষণে রচিত ‘বাংলাদেশের জলবায়ু স্থানচ্যুত মানুষের প্রাপ্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রধান পাঁচটি করনীয়’ শীর্ষক নিবন্ধের প্রথম পর্ব

এসব ও অন্যান্য প্রাকৃতিক দূর্যোগে মানুষের জীবনহানি, ঘরবাড়ি, জমি, জীবিকার ক্ষতির পাশাপাশি দেশব্যাপী জনগোষ্ঠীর স্থানচ্যুতি ত্বরান্বিত করছে, যেমন: জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব অধিকাংশ দূর্যোগকে তীব্রতাসম্পন্ন করে তোলে এবং নতুন দূর্যোগ সৃষ্টির পাশাপাশি স্থানচ্যুতি প্রবণতাকে বৃদ্ধি করে।

বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন যেসব ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলছে তা হচ্ছে : ঘূর্ণিঝড়ের মাত্রা বৃদ্ধি, বাতাসের তীব্রতা বৃদ্ধি এবং জলোচ্ছাসের মাত্রা ও উচ্চতা বৃদ্ধি; বৃষ্টিপাতের তারতম্য যা ব্যাপক এলাকাজুড়ে বন্যা এবং নদী ভাঙ্গনের সৃষ্টি করে যার ফলশ্রতিতে বসতবাড়ী, সম্পত্তি এবং কৃষিভূমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়; হিমবাহ ও বরফের দ্রুত গলনের ফলে গ্রীষ্মকালেও নদীর পানি প্রবাহের উচ্চতা বৃদ্ধি; বাংলাদেশে উত্তর ও পশ্চিম অঞ্চলে অপর্যাপ্ত ও অপ্রত্যাশিত বৃষ্টিপাতের কারণে খরার সৃষ্টি; সমুদ্রস্ফীতির ফলে উপকূলবর্তী নি¤œাঞ্চলগুলো সম্পূর্ণভাবে তলিয়ে যাওয়া এবং ভূগর্ভস্থ ও উপকূলীয় নদীতে লবনাক্ত পানির অনুপ্রবেশের ফলে সুপেয় পানির অভাব দেখা দেয়া।

এসব দূর্যোগ বিশেষ ভৌগলিক বৈশিষ্ট্যের কারণে দরিদ্রতম ও বিপদাপন্ন বাংলাদেশের উপর বেশী প্রভাব সৃষ্টি করে যেখানে পাঁচ কোটির বেশী মানুষ দারিদ্র্যের মধ্যে বসবাস করে। বাংলাদেশ সরকার এই ভয়াবহ সংকট সম্পর্কে সচেতন রয়েছে যেহেতু, শুধুমাত্র সমুদ্র স্ফীতির ফলে আগামী ৪০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশের দুই কোটি মানুষ ভিটে হারা কিংবা স্থানচ্যুত হবে।

প্রাথমিকভাবে বাংলাদেশের জলবায়ু স্থানচ্যুতির অন্যতম কারণ হচ্ছে উপকূলে জোয়ারের উচ্চতা বৃদ্ধি এবং মুল ভূখন্ডে নদী ভাঙ্গন। এছাড়া ঝড়, বন্যা, ঘূর্ণিঝড়ের পরিমাণ বৃদ্ধি এবং মূল ভূখন্ডে নদীতে বন্যার হার বৃদ্ধি। সাধারণত বাংলাদেশের প্রাথমিক ভাবে উপকূলীয় ও নদী বিধৌত অঞ্চলগুলোতে ভিটে হারার মাত্রা বেশি পরিলক্ষিত হয়। দেশের মোট ৬৪টি জেলার মধ্যে ২৬ টি জেলায় স্থানচ্যুত মানুষ সম্পর্কে তথ্য পাওযা গেছে। অনুমান করা হয় যে, বাংলাদেশে এই পর্যন্ত ৬০ লক্ষ লোক জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে স্থানচ্যুত হয়েছে ।

তথাপি, রাজনৈতিক স¦দিচ্ছা এবং আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সম্পদের অভাবের ফলে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যেসব মানুষ নিজস্ব ঘর, ভূমি ও সম্পত্তি হারায় তাদের নতুন জীবন নির্মাণে বর্তমানে কোন সমন্বিত উদ্যোগ নেই। বাংলাদেশে জলবায়ূ পরিবর্তনের কারণে স্থানচ্যুত সকল মানুষ সর্ব প্রকার অধিকার সংরক্ষণ করে এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সকল মানবাধিকার আইনের আওতায় নিরাপত্তা পাওয়ার অধিকার রয়েছে।

লেখকদ্বয়: কর্মসূচি কর্মকর্তা, ইয়ং পাওয়ার ইন সোশ্যাল এ্যাকশন, চট্টগ্রাম, ই-মেইল : prabalims@gmail.com


এ বিভাগের আরো খবর...
খেসারি চাষে আগ্রহ কম, কৃষক ঝুঁকছে সয়াবিনে খেসারি চাষে আগ্রহ কম, কৃষক ঝুঁকছে সয়াবিনে
ইলিশ ধরায় দু’মাসের নিষেধাজ্ঞা ইলিশ ধরায় দু’মাসের নিষেধাজ্ঞা
কলাপাড়ায় আবাসন ও আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের বেহালদশা কলাপাড়ায় আবাসন ও আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের বেহালদশা
ভাষা দিবসে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু ভাষা দিবসে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে দেয়াল পত্রিকা বেলাভূমি’র যাত্রা শুরু
সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়লেও উপকূল এলাকা ডুববে না, অভিমত বিশেষজ্ঞদের সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়লেও উপকূল এলাকা ডুববে না, অভিমত বিশেষজ্ঞদের
ঝিনুকে মুক্তা, সম্ভাবনা রয়েছে উপকূলেও ঝিনুকে মুক্তা, সম্ভাবনা রয়েছে উপকূলেও
বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে সুন্দরবনকে ভালোবাসুন বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে সুন্দরবনকে ভালোবাসুন
বালু উত্তোলন, ৩ হাজার একর ম্যানগ্রোভ বন হুমকিতে বালু উত্তোলন, ৩ হাজার একর ম্যানগ্রোভ বন হুমকিতে
ময়ূরের পানি দূষণের মাত্রা পৌঁছেছে চরমে! ময়ূরের পানি দূষণের মাত্রা পৌঁছেছে চরমে!
সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে সমুদ্র অর্থনীতি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে সমুদ্র অর্থনীতি

জলবায়ু পরিবর্তন, উপকূল জুড়ে উদ্বাস্তু মানুষের লাইন দীর্ঘ হচ্ছে
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)